রংপুরে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত বেড়ে ৯


রংপুরের তারাগঞ্জে যাত্রীবাহী দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯ জনে দাঁড়িয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন ৬৮ জন।

সোমবার (০৫ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত সোয়া ১২টার দিকে রংপুর-দিনাজপুর সড়কের তারাগঞ্জের শলেয়াশাহ খারুভাজ সেতুর কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত পাঁচ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। এরা হলেন- নীলফামারীর সৈয়দপুরের কামারপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক অলিউল ইসলাম জুয়েল, জোয়ানা পরিবহণের চালকের সহকারী নয়ন আলী, রংপুরের তারাগঞ্জের কছিম উদ্দিনের ছেলে আনিসুর রহমান (৪৮), মকবুল হোসেনের ছেলে মহসিন আলম সাগর (৪২) ও মজিবর রহমানের ছেলে আনোয়ার হোসেন(৩৫)।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রাত থেকে প্রচণ্ড বৃষ্টি হচ্ছে। বৃষ্টির মধ্যেই রাত সাড়ে ১২টার দিকে খারুভাজ সেতুর কাছে দিনাজপুর ছেড়ে ঢাকাগামী জোয়ানা পরিবহণের একটি বাসের সঙ্গে ঢাকা থেকে পঞ্চগড়গামী ইসলাম পরিবহণের একটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। দুটি বাসে অন্তত ৮০ জন যাত্রী ছিলেন। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা বৃষ্টিতে ভিজে উদ্ধার কাজ পরিচালনা করেন। দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলে পাঁচ জন ও রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বাকিরা মারা গেছেন।

তারাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব মোর্শেদ জানান, এখন পর্যন্ত ৯ জন মারা গেছেন। নিহতদের সবার নাম পরিচয় এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আহতদের মধ্যে ৬৮ জনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।


আরও পড়ুন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.