খেতা শাহ শিষ্যের বৌ নিয়ে উধাও শিষ্যে  তিন সন্তান নিয়ে বিপদে


জেলা প্রতিনিধি : কথায় আছে অতি ভক্তি যার, চোরের লক্ষণ তার। তার প্রমাণ মিলেছে ময়মনসিংহের তারাকান্দা এলাকায় এক বাড়িতে। ওই এলাকায় গুরু শিষ্যেকে এতো ভালোবাসতেন গুরুর প্রতি শিষ্যের যতটুকু ভক্তি ছিলো তার চেয়ে বেশি ভক্তি ছিলো শিষ্যের প্রতি গুরুর যার ফলে শেষ পর্যন্ত গুরু শিষ্যের বউ নিয়ে উধাও। বলছিলাম ময়মনসিংহের তারাকান্দা এলাকার ফজলুল হক তালুকদার ওরফে খেতা শাহ (৬০) নামের এক ফকিরের কথা।

জানা যায়, ময়মনসিংহের তারাকান্দা এলাকায় এক বাড়িতে আশ্রয় নিয়ে ভক্তের স্ত্রীকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে ফজলুল হক তালুকদার ওরফে খেতা শাহ নামের এক ফকিরের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় স্ত্রীকে উদ্ধার করতে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন নিখোঁজ হওয়ার স্বামী ওই খেতা শাহ’র ভক্ত। অভিযুক্ত ফজলুল হক তালুকদার প্রঃ খেতা শাহ নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার হীরণপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি আধ্যাত্মিক নেতা হিসেবে খেতা শাহ নামে পরিচিত বলে জানা যায়। শুক্রবার (১ জুলাই) সন্ধ্যায় তারাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করছেন।

তিনি বলেন, ফজলুল হক তালুকদার ওরফে খেতা শাহর সঙ্গে তারাকান্দার এক যুবকের পরিচয় হয়। পরিচয়ের সূত্র ধরে ওই যুবক খেতা শাহকে গুরু মেনে দেড় মাস আগে ভক্তের নিজের বাড়িতে থাকার জন্য জায়গা দেন।বাড়িতে থাকা অবস্থায় গত ২২ জুন ভক্তের স্ত্রী বাবার বাড়ি ধোবাউড়ায় যাবে বলে খেতা শাহকে নিয়ে বের হন। এরপর থেকে তারা নিখোঁজ। পরে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও তাদের সন্ধান মেলেনি। এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ আমারা পেয়েছি। তাদের উদ্ধারে কাজ করছে পুলিশ। এদিকে নিখোঁজ নারীর স্বামী বলেন, বিশ্বাস করে খেতা শাহকে আমার বাড়িতে থাকার জন্য জায়গা করে দিয়েছিলাম। সে বিশ্বাস ভঙ্গ করে তিনি আমার স্ত্রী ও ঘরে থাকা ৯০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে গেছেন। তিন সন্তান নিয়ে আমি এখন বিপদে আছি।


আরও পড়ুন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.