জাতীয় জরুরী অবস্থায় সবার আগে স্বাস্থ্যকর্মীদের এগিয়ে আসতে হবে: সিভিল সার্জন ডা. ইলিয়াছ


চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের উদ্যোগে উদীয়মান ও পুনরুত্থিত রোগ এবং জাতীয় জরুরী অবস্থা (বিশেষভাবে টিভিসি তৈরী ও গণমাধ্যমের মাধ্যমে সম্প্রচার) মোকাবেলা বিষয়ে স্বাস্থ্যকর্মীদের করণীয় বিষয়ক এক অ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রোববার (১৯ জুন) বিকেলে সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী।

এসময় সভাপতির বক্তব্যে সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী বলেন, জরুরি অবস্থা হচ্ছে এমন একটি পরিস্থিতি যা স্বাস্থ্য, জীবন, সম্পত্তি বা পরিবেশের তাৎক্ষণিক ঝুঁকি সৃষ্টি করে। অধিকাংশ জরুরি অবস্থায় ক্ষতি প্রতিরোধ করার জন্য দ্রুত হস্তক্ষেপ করা প্রয়োজন হয়। যদিও কিছু পরিস্থিতিতে ক্ষতি প্রতিরোধ করা সম্ভব নাও হতে পারে তবে পরবর্তীতে শুধুমাত্র উপশমকারী পরিষেবা দেয়া হয়। জরুরি অবস্থার প্রতিক্রিয়া ব্যবস্থা অত্যাবশ্যক কারণ প্রাণ ও স্বাস্থ্যের বিপদ থেকে রক্ষা পেতে এর ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। তাই উদীয়মান ও পুনরুত্থিত রোগ এবং জাতীয় জরুরী অবস্থা মোকাবেলায় সবার আগে স্বাস্থ্যকর্মীদের এগিয়ে আসতে হবে।

জেলা স্বাস্থ্য তত্তাবধায়ক সুজন বড়ুয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিভিল সার্জন কার্যালয়ের এমওসিএস ডা. মোঃ ওয়াজেদ চৌধুরী অভি, এমওডিসি ডা. মোহাম্মদ নুরুল হায়দার, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এসআইএমও ডা. এএফএম জাহিদ, সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সিনিয়র হেলথ এডুকেশন অফিসার থোয়াইনু মং মার্মা, জুনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) কাজী মাসুদুল আলম, হেলথ এডুকেটর প্রবীর মিত্র প্রমূখ। স্বাস্থ্য বিভাগের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মচারীবৃন্দ সভায় অংশ নেন।


আরও পড়ুন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.