বিশ্বের সেরা ৮০০-তে নেই দেশের কোনো বিশ্ববিদ্যালয়


বিশ্বসেরা ৮০০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় বাংলাদেশের কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থান পায়নি। ৮০১ থেকে ১০০০তম স্থানের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি)।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) বিশ্বের সেরা এক হাজার ৪০০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক শিক্ষা ও গবেষণা সংস্থা কোয়াককোয়ারেলি সায়মন্ডস (কিউএস)।

শিক্ষক-শিক্ষার্থী অনুপাত, শিক্ষকপ্রতি গবেষণা-উদ্ধৃতি, আন্তর্জাতিক শিক্ষক অনুপাত, আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী অনুপাত, অ্যাকাডেমিক খ্যাতি, চাকরির বাজারে সুনামের ভিত্তিতে বিশ্বের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর এ তালিকা প্রস্তুত করা হয়।

২০১২ সালের পর কিউএস র‌্যাঙ্কিংয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থানের অবনতি হচ্ছে। ওই বছর বিশ্ববিদ্যালয়টির অবস্থান ৬০১ এর মধ্যে থাকলেও ২০১৪ সালে তা পিছিয়ে হয় ৭০১তম, ২০১৯ সালে চলে যায় আরও পেছনে। এরপর ২০২১ সালে ঢাবির অবস্থান ৮০১ থেকে ১০০০-এর মধ্যে ছিল।

তবে কিউএসের তালিকায় স্থান পেয়েছে দেশের দুটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। সেগুলো হলো ‘ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়’ ও ‘নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়’। বিশ্ববিদ্যালয় দুটির অবস্থান ১০০১ থেকে ১২০০-এর মধ্যে।

বিশ্বের সেরা ৫০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় প্রতিবেশী দেশ ভারতের ৯টি ও পাকিস্তানের তিনটি উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্থান পেয়েছে।

‘কিউএস ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি র‍্যাঙ্কিংস–২০২৩-এ শীর্ষ ১০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের পাঁচটি, যুক্তরাজ্যের চারটি এবং সুইজারল্যান্ডের একটি বিশ্ববিদ্যালয় স্থান পেয়েছে।

এবার র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ ১০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের হলো যথাক্রমে যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি (এমআইটি), যুক্তরাজ্যের ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়, যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি, যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়, যুক্তরাষ্ট্রের হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি, যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি (ক্যালটেক), লন্ডনের ইম্পেরিয়াল কলেজ, ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডন, সুইজারল্যান্ডের ইটিএইচ জুরিখ এবং যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো ইউনিভার্সিটি।


আরও পড়ুন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.