চট্টগ্রামে বসতঘরে আগুনে দিয়ে পুড়ে মারার হুমকি নিরাপত্তা চেয়ে পরিবারের সংবাদ সম্মেলন


চট্টগ্রামের মিরসরাই পৌরসভার একটি বাড়িতে প্রতিটি সন্ধ্যা নামে আতংক নিয়ে। প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে একটি পরিবারকে রাতের আঁধারে বসতঘরে আগুন লাগিয়ে পুড়ে মেরে ফেলার হুমকিতে ওই পরিবার ও আশপাশের বাসিন্দাদের এমন আতংক বিরাজ করছে বলে অভিযোগ এনেছে এবং ওই পরিবারের নিরাপত্তা চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করছেন ভুক্তভোগী মিরসরাই পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের মো. আক্কাস আলী বাড়ির মো. আক্কাসের পরিবার।

মঙ্গলবার (১০ মে) দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের এস রহমান হলে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে পাঠ করেন মোছাম্মদ রাশেদা আক্তার।

এসময় লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমার এলাকার ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাখের ইসলাম রাজুর প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ মদদে কিছু চিহ্নিত দুস্কৃতকারী আমাদের পুরো পরিবারকে নিশ্চিন্ন করতে একের পর এক হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত করছে। এতেও তারা ক্ষান্ত হয়নি। এখন নতুন করে এলাকা ছেড়ে না গেলে পুরো পরিবারকে রাতের আঁধারে আগুন দিয়ে জীবন্ত দ্বগ্ধ করার হুমকি দিচ্ছে। সন্ধ্যা নামার পর বেশ কিছু অপরিচিত লোক আমাদের বাড়ির পাশে ঘুর ঘুর করে। যার ফলে আমার পুরো পরিবার এবং আশপাশের বাসিন্দারা প্রতিটি রাত আতংকে কাটানোর পাশাপাশি নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছে। এ সময় কাউন্সিলর রাজু ২০২১ সালে ২৫ জুন আজিম হোসেন শাহাদাত নামে এক যুবককেও খুন করে জেল খেটেছে বলে তিনি জানান।

এসময় তিনি আরও বলেন, মিরসরাই পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের পূর্ব মিরসরাই মৌজায় আমার স্বামী মো. আলী আক্কাস তফশীলকৃত ১১.১৮ শতক জায়গা ক্রয় করে বিভিন্ন দাগের আন্দরে এক দাগের দখল নিয়ে ঘর নির্মাণ করে করে বসবাস করে আসলেও ওই চক্রটি আমাদের ভিড়ে-মাটি দখলে নিতে বিভিন্ন সময় হামলা, পরিবারের সদস্যদের কুপিয়ে রক্তাক্ত, স্বর্ণলংকার,টাকা পয়সা,ঘরের মূলবান জিনিষপত্র লুট করে আসছে। বিশেষ করে কাউন্সিলর রাজুর মদদে ৪ নং ওয়ার্ডের মনগাজি ভূইয়া বাড়ির মো. সেকান্দরের পুত্র মো. রাজু, আব্দুর সালামের পুত্র মো. হাসান, মৃত ফকির আহাংয়ের পুত্র মো. খোরশেদ আলম প্র: দুলাল, মো. বোরহান উদ্দিন প্র: সবুজ, মো. জামশেদ আলম, মো. আব্দুল আজিজ প্র: আনোয়ার আহাংয়ের পুত্র মো. নিজাম উদ্দিন প্র: রেন্টু, মো. জসিম উদ্দিনের ছেলে মো. আব্দুর রহামান প্র: সৌরভ, মৃত শাহ আলমের ছেলে মো. ওমর ফারুকরা এমন ঘটনা ঘটাচ্ছে। যার ফলে আমি চট্টগ্রাম আদালতে মামলা, সাধারণ ডায়েরীর পাশাপাশি মিরসরাই থানাতেও ডায়েরী করে পুনরায় বার বার হামলার শিকার হচ্ছি আমরা।

রাশেদা আরও জানান, আমার দায়ের করা মামলার পরিপ্রেক্ষিতে গত ৮ এপ্রিল সিআইডির কর্মকর্তা তদন্ত কাজ শেষ করে চলে গেলে উল্লেখিতরা বাড়িতে ডুকে মামলা তুলে নিতে বিভিন্ন প্রকার হুমকির পাশাপাশি জানে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। একই সাথে রাতে ঘুমন্তবস্থায় বসত ঘরে আগুন লাগিয়ে সবাইকে জীবন্ত পুড়ে ফেলবে বলে শাসিয়ে দেয়। এছাড়া আমাদের আশাপাশের পরিবারেরও একই পরিণত হবে বলে জানায়। এছাড়া হামলাকারীরা এর আগের দিন ৭ এপ্রিল রাত ৯টার দিকে আমার গোয়াল ঘরেও আগুন লাগিয়ে দিয়েছে।

উল্লেখিত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মিরসরাই থানায় ডায়েরী (নং-৭০৬), মিরসরাই সহকারী জজ আদালতে অপর মামলা (নং-৯৪/২০২২) ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালত(উত্তার), চট্টগ্রামে মিস মামলা (নং- ২৭৩/২০২২) ও গত ১৮ এপিল চীফ জুড়িশিয়াল ম্যাজিস্টেট্র আদালত আরো একটি সাধারণ ডায়েরী (নং- ২১/২০২২) দায়ের করেছি।

তিনি কান্না বিজড়িত কণ্ঠে বলেন, বর্তমানে আমরা নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি। এদের হুমকিতে আমরা প্রতিনিয়ত মৃত্যুভয়ে রয়েছি। অপরিচিত লোকেরা রাতের আঁধারে বাড়ির আশপাশে ঘুর ঘুর করায় আমাদের প্রতিটি সন্ধ্যা নামে আতংক নিয়ে। পুরো পরিবারকে আগুনে পুড়ে মেরে ফেলার হুমকিতে প্রতিটি রাত আমরা নির্ঘুম কাটছি। তিনি তদন্ত পূর্বক এসব দুবৃর্ত্তদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনে আইন শৃংখলা বাহিনীর প্রতি অনুরোধ জানান।

সন্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, নির্যাতনের শিকার
ভুক্তভোগী রাশেদা আক্তারের মা আমেনা বেগম, বোন কানিজ ফাতামা, খালেদা আক্তার ও প্রতিবেশী নাইটগার্ড মো. মোশাররফ হোসেনের স্ত্রী রোকসানা আক্তার।


আরও পড়ুন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.