মহান মুক্তিযুদ্ধ ও ভাষা আন্দোলনে আজাদী ঐতিহাসিক দায়িত্ব পালন করেছে: শুকলাল দাশ


চট্টগ্রামের বাতিঘর দৈনিক আজাদী’র ৬২ তম বর্ষে পদর্পণে দৈনিক আজাদী বাঙালির স্বাধিকার আদায়ের সংগ্রাম-আন্দোলনে অমূল্য অবদান রেখেছে উল্লেখ করে দৈনিক আজাদীর সিনিয়র সাংবাদিক, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কবি শুকলাল দাশ বলেছেন, চট্টগ্রামের গণ-মানুষের সকালের প্রিয় কাগজ দৈনিক আজাদী। প্রাণপ্রিয় সংবাদপত্র। দীর্ঘ একষট্টি বছর ধরে চট্টগ্রামের জনসাধারণের অভাব অভিযোগ-হতাশা-হাহাকার নিরসনে উচ্চকন্ঠ হিসেবে অনন্য ভূমিকা পালন করে আসছে দৈনিক আজাদী।

মহান মুক্তিযুদ্ধ ও ভাষা আন্দোলনে আজাদী উল্লেখ্যযোগ্য এক ঐতিহাসিক দায়িত্ব পালন করেছে। স্বাধীনতাপূর্ব পাকিস্তান শাসনামলেও আজাদী বাঙালির স্বাধিকার আদায়ের সংগ্রাম-আন্দোলনে রেখেছিল অমূল্য অবদান। বহু খ্যাতিনামা সংবাদিক-সংবাদব্যক্তিত্বের পদচারনায় আজাদী একসময় যেখানে মুখর ছিলো-আজও তা অব্যাহত রয়েছে।

সর্বোপরি আজাদীর মাননীয় এডিটর স্যার জনাব এম এ মালেক ও পরিচালনা সম্পাদক জনাব ওয়াহিদ মালেকের মেধা এবং প্রজ্ঞা-সংবাদ সংগ্রহে তাঁদের গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শকে ভিত্তি করে সাংবাদিকদের নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশের মাধ্যমে আজ আজাদী এতদ্ঞ্চলের তথা দেশের একটি অন্যতম সংবাদপত্র হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। আজ তাই সংবাদপত্র জগতে আজাদীর এতো জয় জয়কার। মানুষের এতো প্রশংসা-অভিনন্দনে সিক্ত হয়ে আজাদী আজ সগৌরবে-সংবাদপত্র জগতে কিংবদন্তি হিসেবে দেদীপ্যমান।

চট্টগ্রামে বাতিঘর হিসেবে খ্যাত-চট্টগ্রামের গণ মানুষের অবিচল আস্থা এবং ভালোবাসার কাগজ হিসেবে নিরঙ্কুশ ভাবে নন্দিত পাঠকপ্রিয় পত্রিকা আজাদী আজ ৬২ তম বর্ষে পদার্পণ করেছে।

অর্ধ শতাব্দিরও বেশি সময় ধরে আজাদী-চট্টগ্রামের অর্থনীতি-শিল্প-সাহিত্য-ইত্যাদি বিষয় প্রসঙ্গে বস্তুনিষ্ট খবরাখবর প্রকাশ-চট্টগ্রামের উন্নয়ন আগ্রগিত নিয়ে সোচ্চার ভূমিকা পালন করে চলেছে। সাধারণ মুদি দোকান হতে সরকারি-বেসরকারি-অফিসসহ সর্বসাধারণের কাছে এই জন্য আজাদী বহুল ভাবে সমাদৃত।

আজাদীর এই নিরঙ্কুশ অগ্রগতি-পাঠকপ্রিয়তার মূলে রয়েছেন আমাদের প্রাণপ্রিয় এডিটর স্যার-দেশের জ্যেষ্ঠ সম্পাদক-যশস্বী সাংবাদিক জনাব এম এ মালেক। স্যারের কর্মভাবনায় আজাদী আজ সময়ের এক নূতন দিগন্তে সগৌরবে এসে পৌঁছেছে। এডিটর স্যারের পাশাপাশি যিনি আজাদী অন্তপ্রাণ-আজাদী যাঁর ধ্যান-জ্ঞান-আজাদীর পরিচালনা সম্পাদক জনাব ওয়াহিদ মালেক। আজাদীকে আধুনিক যুগোপযোগী সংবাদপত্র হিসেবে সুধী-সর্বমহলে তুলে ধরতে জনাব ওয়াহিদ মালেকের প্রতিনিয়ত নবতর চিন্তা ভাবনায় আজ উদ্ভাসিত দৈনিক আজাদী।

জন্মলগ্ন থেকে অনেক বছর পেরিয়ে এসেও আজাদী আজও বস্তুনিষ্ঠ-সংবাদ প্রকাশের ক্ষেত্রে আপসহীন ও দ্বিধাহীন। দেশের ভাষা আন্দোলন ও স্বাধীনতা যুদ্ধে জনমানসকে নিরঙ্কুশ সমর্থন ও যথাযথ সহায়তা দেয়া এবং দেশজ নানা আন্দোলন সংগ্রামে একাত্মতা প্রকাশ করে আজাদী চট্টগ্রামবাসী তথা দেশের বিদগ্ধজনের ভূয়সী প্রশংসা অর্জন করেছে। জনগনের দুর্দিন-দু:সময়ের বাতিঘর হয়ে চিরকাল আজাদী চট্টগ্রামের আলো হাওয়ায় দেদীপ্যমান হোক। ঝলমলে সমুজ্জ্বল বাতাসে আজাদীর কথামালা ইতিহাসের পাতায় লেখা থাকবে উত্তর প্রজন্মের কাছে। জয়তু আজাদী-আজাদীর জয় হোক-আজাদীর আগামীর পথচলা আরো ফুলেল সুশোভন হোক।


আরও পড়ুন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.