চট্টগ্রামবাসী প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার অধীর অপেক্ষায়


জিয়া হাবীব আহ্সান: সিডিএ-এর মাষ্টার প্ল্যানে সিআরবি এলাকায় প্রস্তাবিত ঐ হাসপাতালের কোন পরিকল্পনা নেই। ওটা উম্মুক্তস্থান হিসেবে আছে। সুতরাং কোন স্থাপনা যদি মাষ্টার প্ল্যানের ব্যতিক্রম করে করা হয়, তা অবৈধ হবে।

তারা চাইলে সিআরবি এলাকায় বিদ্যমান হাসপাতলের ভেতরেই উন্নয়ন করতে পারে। কোন নতুন ভবন তৈরি না করে (রেফারেন্স- ৫৮ ডিএলআর (এডি) ২৫৩)।

তাছাড়া প্রস্তাবিত হাসপাতালের স্থানে চাকসুর ভি পি শহীদ মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রব- এর সমাধীস্থল রয়েছে। নাম মাত্র মূল্যে রেলের জমি সিএনজি স্টেশন, ধনীর হাসপাতাল, হোটেল, মোটেল তৈরির জন্য ভাগ বাটোয়ারা হয়ে যাচ্ছে।

রেলের হাতে সিআরবি, টাইগার পাস জোন নিরাপদ নয়। এটা রক্ষায় সরকারের আলাদা প্রতিষ্ঠানকে দায়িত্ব দেয়া দরকার। রমনা পার্ক এর মতো এটা রক্ষা করতে ভূমিখেকো রেলের হাত থেকে নিয়ে ফেলা জরুরী।

আমরা আশা করবো মাননীয় প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামবাসীর পালস বুঝতে পেরে সিআরবি সহ চট্টগ্রামের নয়নাভীরাম পাহাড়, নদী, নালা, বৃক্ষ, পশু-পাক্ষী প্রভৃতি প্রাকৃতিক নিদর্শন রক্ষায় যুগান্তকারী ঘোষণা দিবেন। চট্টগ্রামবাসী ওই ঘোষণার অপেক্ষায়।

(আইনজীবী, কলামিস্ট, মানবাধিকার ও সুশাসন কর্মী)


আরও পড়ুন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.