সড়ক দূর্ঘটনায় স্ত্রীর নিহত হলেও সন্ধান পাওয়া যায়নি স্বামীর


কে এম রাজীবঃ চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা যাওয়ার পথে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে কাভার্ড ভ্যানের ধাক্কায় নিহত খাদিজা বেগম (৪০) এর মরদেহ কাঁচপুর হাইওয়ে থানার পুলিশ উদ্ধার করলেও এখন সন্ধান পাওয়া যায়নি স্বামী মোঃ সেলিম (৫৫) নামের এক ব্যক্তির। মোঃ সেলিম চট্টগ্রাম নগরীর বাকলিয়া থানাধীন বগাররবিল শান্তি নগর এলাকার মৃত মোঃ নজরুল ইসলামের ছেলে বলে জানা যায়।

মঙ্গলবার (২৪ আগষ্ট) সকালে নারায়ণগঞ্জের চিটাগাং রোডের সড়ক ও জনপদ অফিসের সামনে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মোঃ সেলিমের ছোট ভাই মোঃ জামাল।

জানা যায়, গত ২৩ আগষ্ট রাতে খাদিজা বেগম ও তার স্বামী মোঃ সেলিম নরসিংদী বাবুর হাটে কাপড় কিনতে যাচ্ছিলেন। তারা নারায়ণগঞ্জ পৌঁছার পর মঙ্গলবার ২৪ আগষ্ট সকালে নারায়ণগঞ্জের চিটাগাং রোডের সড়ক ও জনপদ অফিসের সামনে একটি কাভার্ড ভ্যান তারা দুজন এবং অন্য এক পথচারী সহ মোট তিন জনকে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলে খাদিজা বেগম নিহত হয় এবং বাকিদের স্থানীরা উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে ঘটনাস্থলে কাঁচপুর হাইওয়ে পুলিশ এসে মরদেহটি উদ্ধার করে এবং ঘাতক কাভার্ড ভ্যানটিকে আটক করেছে বলে জানা যায়।

এবিষয়ে কাঁচপুর হাইওয়ে পুলিশের দায়িত্বরত অফিসার মোঃ নুরুল হাসানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সকাল বেলা দূর্ঘটনা হওয়ার পর খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যায়। গিয়ে আমরা খাদিজা বেগম নামের এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করি।কিন্তু আমরা আসার আগে অন্য আহতদের স্থানীয়রা হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে নিহতের স্বজনরা আমাদের সাথে যোগাযোগ করে নিহতের স্বামী মোঃ সেলিমের বিষয়টি জানালে, আমরা সহ ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে আহতদের খোঁজ নেওয়ার পরও কোনো সন্ধান পাইনি। তবে আমরা আহতদের সন্ধানের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি এবং বিষয়ে মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান নুরুল হাসান।


আরও পড়ুন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.