সবসময় মানুষের পাশে থাকতে চাই: ডাঃ প্রিন্স সেন


মোঃ শহিদুল ইসলাম রানা, বান্দরবান জেলা প্রতিনিধি: ডাঃ প্রিন্স সেন। একজন মানবিক মানুষ। মানুষের কল্যানে কাজ করতে যিনি স্বাচ্ছন্দ বোধ করেন। করোনাকালীন পুরো সময় জুড়ে বান্দরবানের প্রত্যান্ত অঞ্চলে অসহায় মানুষের জন্য কাজ করেছেন। সরকারি সহযোগিতার পাশাপাশি ডা. প্রিন্স সেন নিজস্ব উদ্যোগে ত্রাণ সহায়তা চালিয়ে যাচ্ছেন।

দীর্ঘদিন লকডাউনের প্রভাবে কর্মহীন হয়ে পড়েছে নানা শ্রেনী- পেশার মানুষ।বান্দরবানে ইতিমধ্যে সরকারি সাহায্য সহায়তার পাশাপাশি ব্যক্তি উদ্যোগে অনেকেই অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছেন। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ আওয়ামী যুব প্রজন্মলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ চট্টগ্রাম বিভাগীয় সমন্বয়ক ও বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ বান্দরবান পার্বত্য জেলার আহবায়ক, বান্দরবান জেলা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি ডাঃ প্রিন্স সেন সম্পূর্ণ ব্যক্তি উদ্যোগে অসহায়, কর্মহীন হয়ে পড়া পরিবারের সাহায্যে এগিয়ে এসেছেন। এরই মধ্যে বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টালে ত্রান সামগ্রী বিতরণের সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে যা চোখে পড়ার মতো।

ব্যক্তি উদ্যোগে চলমান এই ত্রান সহায়তার বিষয়ে যানতে চাইলে ডাঃ প্রিন্স সেন বলেন, করোনার এই মহামারীতে অনেক পরিবার অসহায় হয়ে পড়েছেন। খেটে খাওয়া দিন মজুর থেকে শুরু করে, অনেক নিম্ন আয়ের মানুষ এখন কর্মহীন হয়ে দিনাতিপাত করছে। আমি এর আগেও অসহায় মানুষের সাহায্যে এগিয়ে এসেছি যা আপনারা অবগত আছেন।ক্রমান্বয়ে আমি আমার সাধ্যমত ত্রান সহায়তা দিয়ে অসহায় মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা অব্যাহত রাখবো।

এই ব্যাপারে একান্ত সাক্ষাৎকারে ডাঃ প্রিন্স সেন বলেন, বিগত সময়ে বিশেষ করে রমজানে সাধারন মানুষের অসুবিধায় আমি স্বাস্থ্য বিধি মেনে বান্দরবান পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের বিভিন্ন ব্লকে আমার ব্যক্তিগত উদ্যোগে ত্রাণ সামগ্রী স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবীদের মাধ্যমে পৌছিয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করেছি।যার মধ্যে ছিলো চাল, ডাল, আলু, তৈল, সেমাই, চিনি, মাস্ক, হ্যান্ড ওয়াস, শাড়ী, লুঙ্গি, পাঞ্জাবি, নগদ অর্থ।

ডাঃ প্রিন্স সেন বলেন, আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক। আমার রাজনৈতিক আদর্শ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তাঁর ব্যক্তি জীবনে সাধারণ মানুষের জন্য যে ভালোবাসা, আবেগ আমরা দেখতে পাই তা বাংলার বুকে চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে। মমতাময়ী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি বান্দরবানের জনগন কৃতজ্ঞ। বান্দরবান তথা পার্বত্য এলাকার দলমত নির্বিশেষে আপামর জনতার জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব, বর্ষীয়ান রাজনৈতিক নেতা পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের মাননীয় মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এর ঐকান্তিক প্রচেস্টায় করোনাকালীন সময়ে প্রতিটি মানুষ প্রধানমন্ত্রীর উপহারের পাশাপাশি-মন্ত্রী মহোদয়ের উপহার পেয়েছেন। বেসরকারি উদ্যোগেও ত্রাণ সহায়তা অব্যাহত আছে।

আমাদের মন্ত্রী মহোদয় আমাদের দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি নির্দেশনা প্রদান করেছেন। তিনি দলিয় নেতাকর্মীদের আহ্বান করেছেন যে, সরকারী সহায়তা যথেষ্ট পরিমান মজুদ আছে এবং তা প্রয়োজন মাফিক দরিদ্র মানুষের মাঝে বিতরণ কার্যক্রম চলমান আছে। তারপরেও আপনারা আপনাদের ব্যক্তিগত তহবিল হতে অসহায় মানুষের মাঝে ত্রান সহায়তার উদ্যোগ গ্রহন করুন। তাই আমি পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের মাননীয় মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এর কথায় উদ্ভুদ্ধ হয়ে আমার ব্যক্তি উদ্যোগে সাধারণ মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়িয়েছি। এরই ধারা বাহিকতায় আমি ইতিমধ্যে ব্যক্তি উদ্যোগে ত্রাণ প্রদানের ব্যাবস্থা গ্রহন করেছি। সৃষ্টিকর্তা সহায় হলে আগামীতেও আমি ত্রান প্রদান কার্যক্রম অব্যাহত রাখবো। ইতিমধ্যে আসন্ন ঈদুল আযহা(কোরবানীর ঈদ) উপলক্ষে আমার ব্যক্তি উদ্যোগে কর্মহীন, অসহায় জনসাধারনের মাঝে ঈদ উপহার প্রদানের উদ্যোগ নিয়েছি। সার্বিক পরিস্থিতি অনুকুলে থাকলে সঠিক সময়ে তা বাস্তবায়নের ইচ্ছে আছে। নিম্ন আয়ের জনসাধারণের মাঝে ঈদ উপহার প্রদানের লক্ষে কার্যক্রম পরিচালনা ও সরবরাহের জন্য তালিকা প্রস্তুতের কাজ চলমান আছে। তালিকা প্রস্তুত অচিরেই সম্পন্ন হবে বলে আশা রাখি। সকলের সহযোগিতা পেলে সঠিক সময়ে তা বিতরণের ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

আমি আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ জানাই কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের প্রতি এবং আমার স্বেচ্ছাসেবী ভাইদের প্রতি, যাদের সহযোগিতা না পেলে এ কাজ সহজে সম্ভব হতো না।ধন্যবাদ জানাই যারা এই ত্রান কার্যক্রমে আমাকে সহযোগিতা করেছেন। ধন্যবাদ জানাই সকল প্রিন্ট ও অনলাইন নিউজের সাথে জড়িত সকল সাংবাদিক ভাইদের প্রতি যাদের উৎসাহে আমি সেবামূলক কাজে অনুপ্রাণিত হয়েছি। আমি আশা রাখবো বান্দরবানে ব্যাক্তি উদ্যোগে ত্রান সহায়তা প্রদানে বিশিষ্ট জনেরা এগিয়ে আসবেন।

সকল পেশার মানুষ যে, যার অবস্থান হতে সচেতন হলে, সরকারী নির্দেষনা অনুযায়ী সাস্থ্যবিধি প্রতিপালন করলে, মাক্স ব্যাবহারে সচেতন হলে অচিরেই এই কোভিড-১৯ সংক্রমন থেকে আমরা মুক্তি পাবো।সচেতনতাই আমাদেরকে মুক্তির পথ দেখাবে।


আরও পড়ুন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.