আমরা জোর করে কাউকে খেলাব না, সাকিব ইস্যুতে বিসিবিপ্রধান


টেস্ট ক্রিকেটে বড় দুঃসময় পার করছে বাংলাদেশ। এই টানাপোড়েনের মধ্যেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পরের টেস্ট সিরিজে দলের সেরা তারকা সাকিব আল হাসানকে পাচ্ছে না বাংলাদেশ। ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেট লিগ আইপিএলে অংশ নেওয়ার জন্য দেশের হয়ে টেস্ট সিরিজের খেলবেন না সাকিব।

দেশের ক্রিকেটের এমন দুঃসময়ে সাকিবের ছুটি চাওয়ার বিষয়টি নিয়ে মন খারাপ হয়েছে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের। সামনে থেকে কোনো ক্রিকেটারকেই আর দেশের হয়ে খেলতে জোর করবেন না বিসিবিপ্রধান।

টানা পরাজয়ের বৃত্তে আটকে থাকা বাংলাদেশ কদিন আগেই ঘরের মাঠে টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে। ওই স্মৃতি নিয়ে বাংলাদেশ দলের পরের মিশন হলো নিউজিল্যান্ড সফর, এরপর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট। দুই সিরিজেই নেই সাকিব। পারিবারিক কারণে নিউজিল্যান্ড সফর থেকে ছুটি নিয়েছেন আর আইপিএলের জন্য থাকছেন না শ্রীলঙ্কা সফরে।

নিউজিল্যান্ড সফরে যাওয়ার আগের দিন আজ সোমবার কোচিং স্টাফ ও ক্রিকেটারদের সঙ্গে বৈঠকের পর সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে সাকিব ইস্যুকে প্রসঙ্গ করে নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘সাকিবের ব্যাপারে আমরা বিব্রত নই। তবে এটা বলতে পারি সাকিবের জন্য আমাদের মন খারাপ। দেখেন বোর্ড একটা খেলোয়াড়ের পেছনে অনেক ইনভেস্ট করে, কতটা করে সেটা আপনাদের জানা আছে কি না, জানি না। সে জায়গায় দল এমন দুটি টেস্ট ম্যাচ হারার পর যেমন– আমরা আফগানিস্তানের কাছে হেরেছি, আমরা হেরেছি পাকিস্তান-ভারতের কাছে, এরপর ঘরের মাটিতে হারলাম পরপর দুই টেস্ট। এমন পরিস্থিতিতে কেউ যদি বলে দেশের হয়ে পরের টেস্ট খেলব না, তাহলে কেমন লাগে?’

অথচ বিসিবিপ্রধান ভেবেছেন এত ব্যর্থতার পর ক্রিকেটাররা জেতার জন্য মরিয়া হয়ে উঠবেন, ‘আমার ধারণা ছিল, সবাই উঠে-পড়ে লাগবে যে পরের টেস্টটা আমাদের জিততেই হবে। সেখানে কেউ যদি মনে করে দেশের হয়ে না খেলে অন্য দেশের টুর্নামেন্টে খেলবে, সে জায়গায় আসলে কিছু বলার থাকে না। এটা খারাপ লাগার।’

এরপর কেন্দ্রীয় চুক্তিতে নিয়মে পরিবর্তন আনার আভাস দিয়ে নাজমুল হাসান বলেন, ‘এখন আমরা আমাদের দিক থেকে পরিষ্কার যে, আমরা জোর করে কাউকে খেলাব না। এটা (চুক্তি) আমরা দীর্ঘ মেয়াদি করব। প্রতিটি সিরিজের আগে এমন হওয়া চলবে না। এতগুলো ম্যাচ হারার পরে বিশেষ করে সিনিয়র খেলোয়াড়দের ভাবনা হওয়া উচিত যে, আমাদের পরের ম্যাচ জিততেই হবে। এইটা না হয়ে, কেউ বলে খেলবে না, তাও আবার ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টে খেলার জন্য। তাহলে আমি বলব, এদের দিয়ে খুব বেশি কিছু করানো যাবে না।’


আরও পড়ুন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.