সাহেদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড


রিজেন্ট হাসপাতাল ও রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. সাহেদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে করা মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ সোমবার দুপুরে ঢাকা মহানগর এক নম্বর বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক কে এম ইমরুল কায়েশ এ আদেশ দেন। সংশ্লিষ্ট আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে গত ২০ সেপ্টেম্বর উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে এ দিন ধার্য করেন আদালত।

দেশব্যাপী নানা জালিয়াতি-প্রতারণায় সাহেদের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া একাধিক মামলার মধ্যে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় অস্ত্র মামলায় প্রথম রায় হয়েছে আজ। অস্ত্র আইনের ১৯(এ) ধারায় দায়ের করা এই মামলায় দোষী সাব্যস্ত হলে সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে।

রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় দায়ের করা এ মামলায় গত ২৭ আগস্ট আদালত অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর নির্দেশ দেন। রাষ্ট্রপক্ষে ১৪ জন সাক্ষীর মধ্যে ১১ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করেন আদালত।

করোনা ভাইরাস নমুনা পরীক্ষা না করেই ভুয়া রিপোর্ট জালিয়াতি ও নানা অনিয়মের অভিযোগে গত ৭ জুলাই সাহেদসহ ১৭ জনকে আসামি করে উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি মামলা করা হয়। শুরুতে মামলার তদন্তভার ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশকে দেয়া হলেও পরে তা র‍্যাবের কাছে হস্তান্তর করা হয়। সাহেদকেও হস্তান্তর করা হয় র‍্যাবে।

গত ১৫ জুলাই ভোরে সাতক্ষীরার সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে সাহেদকে গ্রেফতার করে র‍্যাব। সাহেদের বিরুদ্ধে ঢাকাসহ সারাদেশে অর্ধশতাধিক মামলা রয়েছে। এরমধ্যে বেশিরভাগই প্রতারণা ও জালিয়াতির মামলা।


আরও পড়ুন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.